মেইন ম্যেনু

বিএনপি প্রার্থীর গণসংযোগে হামলা, ১৩ মোটরসাইকেলে আগুন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনে বিএনপির প্রার্থী সরদার মো. সাখাওয়াত হোসেন বকুলের নির্বাচনী গণসংযোগে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় ১৩টি মোটরসাইকেল আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় বেশ কয়েকটি গাড়ি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মনোহরদী উপজেলার হেতেমদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বিএনপি নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল নেতাকর্মীদের নিয়ে হেতেমদী এলাকায় প্রচারণা ও গণসংযোগ চালাচ্ছিলেন। বিকেলে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ৩০/৪০ জন ক্যাডার পেছন থেকে রাম দা লাঠিসোটা নিয়ে গণসংযোগে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা ১৩টি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। একটি মাইক্রোবাসসহ বেশ কয়েকটি গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় পাঁচজন নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর আহত তিনজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

মনোহরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। তবে কারা হামলা চালিয়েছে বা গাড়িগুলো কাদের ছিল তা কেউ বলতে পারেনি। এমনকি এখন পযর্ন্ত থানায় কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি।

বিএনপির প্রার্থী সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল বলেন, গণসংযোগের সময় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ৩০/৪০ জন ক্যাডার পেছন থেকে রাম দা ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। আমাদের গাড়িতে আগুন দেয় এবং নেতাকর্মীদের মারধর করে।

নরসিংদী-৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহামুদ হুমায়ন এমপি বলেন, বিএনপির আমলে বকুল সাধারণ জনগণের ওপর স্টিম রুলার চালিয়েছিল। সংখ্যালঘুসহ বহু মানুষের বাড়িঘর আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছিল। মামলা দিয়ে এলাকার হাজার হাজার লোককে গ্রাম ছাড়া করেছিল। এখন জনগণ বকুলের বিরুদ্ধে জেগে উঠেছে। এ ঘটনা এরই বহিঃপ্রকাশ। তবে আমরা এসব নৈরাজ্য পছন্দ করি না। আমরা এ ধরনের নৈরাজ্য প্রতিহত করে মানুষের মধ্যে স্বস্তি এনে দেব।



মন্তব্য চালু নেই