শিরোনাম:

বিজ্ঞানের চেয়ে মানবিকে পাসের হার কম যে বোর্ডে

এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে মোট পাসের হার ৫৯.০৩ শতাংশ। এ বোর্ডে সবথেকে কম পাস করেছে মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এ বিভাগ থেকে মোট পাসের হার ৪১.১৪ শতাংশ। ৮৪.১৬ শতাংশ পাস করে ভালো ফলাফল করেছে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এছাড়া ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পাস করেছে ৫৬. ৫৭ শতাংশ শিক্ষার্থী।

এ বছর কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৮৩ হাজার ৮০৬ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ৮ হাজার ১১১ জন শিক্ষার্থী। এছাড়া জিপিএ-৫ পেয়েছে ৪ হাজার ৪৫০ জন।

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে গণিতে অকৃতকার্য হয়েছে ৩৪ হাজার ৬৬৯ জন ও ইংরেজিতে অকৃতকার্য হয়েছে ২৫ হাজার ৬০৬ জন পরীক্ষার্থী। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কাউসার আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত বছরের তুলনায় এবার এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় পাসের হার কমেছে। এবার পাসের হার ৮০.৩৫ শতাংশ। ২০১৬ সালে পাসের হার ছিল ৮৮.২৩ শতাংশ।

যেভাবে জানা যাবে ফল

শিক্ষার্থীরা দুপুর ২টা থেকে ইন্টারনেট, মোবাইল এসএমএস ও নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে ফলাফল জানতে পারবে।

যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানা যাবে। SSC/DAKHIL লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে (যেমন, ঢাকা হলে DHA) স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৭ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠালে ফিরতি এসএমএসে ফল জানা যাবে।

শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট www.educationboardresults.gov.bd থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবেন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফলাফল ডাউনলোড করতে পারবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো হার্ডকপি সরবারহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দফতর থেকে ফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষণ
রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক থেকে আগামী ৫ থেকে ১১ মে পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটির আহ্বায়ক তপন কুমার জানিয়েছেন।

ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখতে হবে; এরপর ফের স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেওয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখতে হবে; এরপর ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। যে সব বিষয়ের দুটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে যে সকল বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দুটি পত্রের জন্য মোট ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে।

একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে, এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।

এবার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলে মোট জিপিএ-৫ পেয়েছেন এক লাখ চার হাজার ৭৬১ জন শিক্ষার্থী। ১০ শিক্ষা বোর্ডে এবারের গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (৪ মে) সকাল ১০টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর হাতে পরীক্ষার ফলের কপি হস্তান্তর করেন। এ সময় মন্ত্রী এসব তথ্য জানান।