প্রধান ম্যেনু

বিমান বিধ্বস্তে নিহত প্রতি পরিবারে ২৫০০০ ডলার দেবে কানাডা

ইরানের রাজধানী তেহরানে ইমাম খামেনি বিমানবন্দরে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত কানাডার নাগরিকদের প্রত্যেকের পরিবারকে ২৫ হাজার ডলার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কানাডা। গত ৮ জানুয়ারি ভুলবশত ইউক্রেনের একটি যাত্রীবাহী বিমান গুলি করে ভূপাতিত করে তেহরান।

ওই বিমানটিতে ইরানের ৮২ জন, কানাডার ৫৭ জন, ইউক্রেনের ১১ জন, সুইডেনের ১০ জন, আফগানিস্তানের চারজন এবং যুক্তরাজ্যের তিনজন নিহত হয়। কানাডা জানিয়েছে, নিহত ৫৭ জনের প্রত্যেকের পরিবারকে ২৫ হাজার ডলার করে দেওয়া হবে।

আনাদোলু নিউজ এজেন্সির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এই ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি যখন এই ঘোষণা দেন তখন ওমানের রাজধানী মাসকাটে মুখোমুখি বৈঠক করছিলেন কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাসোয়া ফিলিপ এবং ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ।

ইউক্রেনের ওই বিমানটি এমন এক সময় বিধ্বস্ত হয়েছে যখন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরানের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছে। গত ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির পর দ্বিতীয় শক্তিধর ব্যক্তি ছিলেন জেনারেল সোলেইমানি। তার মৃত্যুর প্রতিশোধ হিসেবে গত ৮ জানুয়ারি ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চালায় তেহরান। এর কয়েক ঘণ্টার পরেই ইউক্রেনের যাত্রীবাহী বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

প্রথমদিকে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিজেদের দায় অস্বীকার করে ইরান। তবে দুর্ঘটনার তিনদিন পর ওই ঘটনার দায় স্বীকার করে ইরান জানায় যে, ভুলবশত ওই বিমানটি ভূপাতিত করা হয়েছে। বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা তদন্তে ইউক্রেনকে অংশ নেয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে ইরান। তারা স্বচ্ছভাবে ব্ল্যাক-বক্সের তথ্য বিশ্লেষণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

ট্রুডো জানিয়েছেন, দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সাম্প্রতিক উত্তেজনা কমিয়ে আনতে জাভেদ জারিফকে আহ্বান জানিয়েছেন ফ্রাসোয়া ফিলিপ।

সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো বলেন, নিহতদের মরদেহ দেশে আনা, তাদের শেষকৃত্য সম্পন্ন এবং অন্যান্য কাজে ব্যয়ের জন্য ২৫ হাজার ডলার করে সহায়তা দেওয়া হবে। এর পুরোটাই কানাডা কর্তৃপক্ষের সহায়তা। এখনও নিহতদের পরিবারকে ইরানের তরফ থেকে কোনো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়নি। ট্রুডো বলেন, আমরা আশা করছি ইরান এই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে সহায়তা প্রদান করবে।



মন্তব্য চালু নেই