বিসিএস ক্যাডার রিফাত আহমেদের নেতৃত্বে গরীব কৃষকের ধান কেটে দিলো স্বেচ্ছাসেবীরা

মানুষের জীবনকে থমকে দিয়েছে মহামারী করোনা ভাইরাস। দেশে চলমান লকডাউনে গরীবের জীবন হয়ে পড়েছে অচল। গ্রামের গরীব কৃষকের অবস্থা খুবই খারাপ। একদিকে লকডাউনে পাচ্ছে না শ্রমিকের মজুরি পরিশোধ করতে, অন্য দিকে পাচ্ছে না কোনো আয়ের উৎস।

সেই রকম এক গরীব কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার শ্রীবরদী সরকারী কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক ৩৩তম বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা রিফাত আহমেদ ও তার এলাকার কিছু স্বেচ্ছাসেবী।

১মে (শনিবার) শ্রীবরদী উপজেলার কাকিলাকুড়া ইউনিয়নের মলামারী গ্রামের বুছা মিয়া নামের এক গরীব অসহায় কৃষকের প্রায় আট কাঠা জমির ধান কেটে দিলেন তারা।

স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য, চুয়েটের কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র মিরাজ,কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র জুনায়েদ, নটরডেম কলেজের ছাত্র শাহিদ, শ্রীবরদী সরকারী কলেজের ছাত্র মাহাদী, কারিগরী কলেজের ছাত্র সিফাত এবং দশম শ্রেণির ছাত্র সুজন।

এ বিষয়ে বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা রিফাত আহমেদ জানান, চলমান লকডাউনে আমি গ্রামের বাড়িতে এসেছি। আমাদের গ্রামের বেশ কিছু কৃষক অসহায়। তারা টাকার অভাবে ধান কাটতে অপারগ হয়ে পড়েছে। তাই আমি ভাবলাম আমার এলাকার স্বাচ্ছাসেবী কিছু তরুণদের নিয়ে অসহায় কৃষকদের পাশে দাঁড়ালে তারা উপকৃত হবে।



মন্তব্য চালু নেই