শিরোনাম:

বেনাপোলে নকল ফেনসিডিল, একশো টাকার সিরাপ চার হাজার টাকা!

লকডাউনের কারনে ভারতে বেড়ে গেছে ফেনসিডিলের দাম। চাহিদা প্রচুর থাকায় নকল ফেনসিডিল সীমান্ত গলিয়ে বাংলাদেশে ঢুকছে। একশো টাকার সিরাপ বিক্রি হচ্ছে চার হাজার টাকায়।

যশোরের শার্শাা ও বেনাপোল সীমান্তে এখন নকল ফেনসিডিলের ছড়াছড়ি। যাচ্ছে যশোর খুলনাসহ দেশের বড় বড় শহরে। সীমান্তে ফেনসিডিল এর দাম বেশ চড়া। প্রতি বোতল খুচরা বিক্রি হচ্ছে এখন ৩৫শ’ থেকে ৪ হাজার টাকা।

নির্ভরশীল একটি সুত্র থেকে জানা গেছে, পশ্চিমবঙ্গে লকডাউনের কারনে ফেনসিডিল এর দাম বাড়িয়ে দিয়েছে পাচারকারীরা। সেখান থেকে ১০০ বোতল ফেনসিডিল কিনতে হচ্ছে ১ লাখ ৭৫ হাজার টাকায়। পাচিং খরচ সহ প্রতি পিচ ফেনসিডিল এর দাম পড়ছে বাংলাদেশী টাকায় দুই হাজার টাকা। বাংলাদেশে আসারপর এলাকা ভেদে তা দ্বিগুন দামে বিক্রি হচ্ছে। ফেনসিডিল এর দাম বেড়ে যাওয়ার কারনে ভারতে ও বাংলাদেশের সীমান্তে নকল ফেনসিডিল তৈরী করে বাজারে আনা হচ্ছে। যা খেয়ে চোখমুখ ফুলে পড়ছে অনেকের।

সুত্র জানায়, ভারতে কাশির সিরাপ “সাইকোরক্স” যার খুচরা মুল্য প্রতি পিস ১শ” টাকা। ফেনসিডিল এর বোতলে ভরে তা বাংলাদেশে পাচার করা হচ্ছে। এছাড়াও ফেন্সিলেক্স ও ফেনারগান সিরাপ এর সাথে কৃত্রিম ঝাজ মিশিয়ে ফেনসিডিল বানানো হচ্ছে। যা খেয়ে ফেন্সিসেবীরা অসুস্থ্য হয়ে পড়ছেন।

সচেতন মহল বিষয়টা নিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।



মন্তব্য চালু নেই