শিরোনাম:

ভারতের আসামে ধর্ম প্রচার করায় ১৭ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

পর্যটন ভিসায় ভারতে গিয়ে আসামে ধর্মপ্রচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন ১৭ বাংলাদেশি নাগরিক। ভিসার শর্ত লঙ্ঘন করেছেন বলে অভিযোগ তাদের বিরুদ্ধে।

রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) আসাম পুলিশের ডিজি ভাস্করজ্যোতি মোহন্ত বলেন, অনেক সময় বাংলাদেশ থেকে পর্যটন ভিসা নিয়ে ভারতে এসে ধর্মের প্রচার করেন কিছু ব্যক্তি।

অনেকে আবার মৌলবাদেরও বিষবাষ্পও ছড়ান। এ ধরনের অনেক প্রচারকের আসামে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে অনেক দিন ধরেই।

মোহন্ত সাংবাদিকদের বলেন, পর্যটনের উদ্দেশ্য বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ। কিন্তু এর পরিবর্তে পর্যটন ভিসার অপব্যবহার করেছেন তারা।

তাদের অনেকে চিকিৎসার জন্য ভিসা নিয়ে ভারতে এসেও ধর্মীয় প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন বলে জানান মোহন্ত। ওই ১৭ জন বাংলাদেশি ১৩ সেপ্টেম্বর কোচবিহার দিয়ে আসামে ঢোকেন।

তিনি আরো বলেন, বাগমারি নামের এক এলাকায় এই ব্যক্তিদের প্রথমে চিহ্নিত করা হয়। গ্রেপ্তার বাংলাদেশি নাগরিকেরা বাগমারি এলাকায় ধর্মীয় আলাপ-আলোচনা চালাচ্ছিলেন।

আসামের রাজ্য পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার আসামের বিশ্বনাথ জেলার বাঘমারি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে আটজন পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন।

বাকিরা বিচার বিভাগীয় হেফাজতে আছেন। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারে থেকে বিশ্বনাথ একটি ধর্মীয় সভার আয়োজন করেছিলেন।

কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ সরকারের সহকারী দূতাবাস বিষয়টির ওপর নজর রেখেছে এবং সংশ্লিষ্ট অফিসাররা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন বলে জানা গেছে।