ভোলায় দরিদ্র কৃষকের ধান কাটতে এগিয়ে আসলো ছাত্রলীগ

ভোলায় দরিদ্র কৃষকের ধন কেটে বাড়ি পৌঁছে দিলো ছাত্রলীগ। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে শ্রমিক সঙ্কট থাকায় ভোলার রাজাপুর ইউনিয়নে দরিদ্র কৃষকের জমির ধান কেটে দিয়েছে রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

শনিবার (০১মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজাপুর ইউনিয়নের চর-মনসা গ্রামের মজিবল মিয়া নামে এক গরিব কৃষকের এক বিঘা জমির পাকাধান ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা কেটে মাড়াই করে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন। রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী ফজলে রাব্বি নেতৃত্বে ধান কাটায় অংশ নেন রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

কৃষক মোঃ মজিবল মিয়া বলেন,‘আমি গরিব মানুষ। করোনা পরিস্থিতিতে টাকার অভাবে ধান কাটা শ্রমিক না পাওয়ায় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা আমার ধান কেটে মাড়াই করে বাড়িতে দিয়ে গেছে আমি অনেক আনন্দিত।

রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী ফজলে রাব্বি জানান, করোনা পরিস্থিতিতে শ্রমিক সংকট দেখা দেওয়ায় কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। ভোলা জেলা ছাত্রলীগের নির্দেশ ক্রমে আমরা রাজাপুর ইউনিয়ন এর গরিব কৃষকদের ধান কাটা কাজে সহযোগিতা করে যাচ্ছি। রাজাপুর ইউনিয়নে যেখানেই গরিব কৃষক শ্রমিক সংকট, সেখানেই আমরা ছাত্রলীগ নেতারা উপস্থিত হয়ে কৃষকের ধান কেটে দেবে।

এ বিষয়ে রাজাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জানান, ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের সূত্রে জানানো হয় যেখানে গরিব অসহায় প্রান্তিক কৃষক আছে তাদের পাশে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনকে এগিয়ে আশার জন্য বলা হয়েছে। বিষয়টি জানতে পেড়ে আমার ইউনিয়ন এর মেম্বার চৌকিদারদের জানালাম। এর পরিপেক্ষিতে আজ অসহায় মজিবল কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছে রাজাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কর্মীরা।



মন্তব্য চালু নেই