শিরোনাম:

মনোনয়ন না পাওয়ায় মাথা মোড়ালেন কংগ্রেস নেত্রী!

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার ভোট নিয়ে ঘটছে নানা ঘটনা। এরমধ্যে ফের আলোচনায় আসলেন কংগ্রেস নেত্রী। মনোনয়ন না পাওয়ায় দল ছেড়ে মাথা মুড়িয়ে ফেললেন কংগ্রেস নেত্রী লতিকা সুভাষ।

এ ঘটনায় কেরালার রাজনীতিতে নতুন আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে।

সোমবার (১৫ মার্চ) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এই সময়ের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা গেছে, ২০১৮ সাল থেকে কেরালার মহিলা কংগ্রেসের সভাপতি পদে থাকার পরও তাকে মনোনয়ন না দেওয়ায় দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ঝেড়ে এমনই এক সিদ্ধান্ত নেন এই নেত্রী। নির্বাচন সামনে রেখে কংগ্রেসে এই অন্তর্দ্বন্দ্ব নিয়ে নতুন জল্পনা শুরু হয়েছে।

লতিকা ভারতীয় গণ মাধ্যমকে জানান, জীবনের দীর্ঘ ২০ বছর তিনি দলকে দিয়েছেন। পথে-ঘাটে নেমে এতদিন তিনি মানুষের সেবা করেছেন। দলের জন্য প্রাণপাত করেছেন। কিন্তু দল তাকে যোগ্য মর্যাদা দেয়নি।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের হুগলির ত্রিবেণী এলাকার বিজেপি নেতা নিরুপম মুখার্জী সোমবার সকালে রেললাইনে গিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। কারণ প্রার্থীকে পছন্দ হয়নি তার।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, আত্মহত্যার চেষ্টা করা ওই বিজেপি নেতা নিরুপম মুখার্জীর অভিযোগ সাংসদ লকেট চ্যাটার্জী কোনো স্থানীয় নেতৃবৃন্দের মতামতকে তোয়াক্কা না করে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া দেবব্রত বিশ্বাসকে সপ্তগ্রামের প্রার্থী করতে চাইছেন। যা নিয়ে তীব্র ক্ষোভ দেখতে শুরু করে স্থানীয় নেতাকর্মীরা।

তবে কেউ যে একেবারে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করবেন তা কেউ ভাবতে পারেনি। রেললাইনে গিয়ে নিরুপম আত্মহত্যার চেষ্টা করলে দলীয় কর্মীরা সেসময় তাকে বাধা দেয়।



মন্তব্য চালু নেই