শিরোনাম:

মাদারীপুরে শিক্ষককে লাঞ্ছিতের ঘটনায় আ.লীগ নেতা গ্রেফতার

মাদারীপুর সদর উপজেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দেলোয়ার খাঁকে (৬৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) রাতে উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের বাড়ি থেকে সদর থানা পুলিশ দেলোয়ারকে গ্রেফতার করে। এর আগে সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী শিক্ষক কাজী এনামুল হক, থানায় অভিযোগ দায়ের করেন দেলোয়ারের বিরুদ্ধে। গ্রেফতারকৃত দেলোয়ার উপজেলার কালিকাপুর ইউনিয়নের মৃত জাহিদ খাঁ’র ছেলে।

ভুক্তভোগী ও থানা সূত্রে জানা যায়, এনামুল হক সহকারী শিক্ষক হিসেবে সদর উপজেলার ৪৩নং সাবেক কালিকাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৪ বছর ধরে শিক্ষাকতা করে আসছেন। এদিকে একই বিদ্যালয়ের সামনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য দেলোয়ার খাঁ’র মামাতো ভাই আক্তার খাঁ একটি পুরি, সিঙ্গারার দোকান দিয়ে ব্যবসা চালাতেন। শিক্ষক এনামুল হক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শারীরিক সুস্থতার কথা চিন্তা করে নিয়মিত বাইরের দোকান থেকে পুরি সিঙ্গারা খেতে নিষেধ করে। এতেই দেলোয়ার ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। গতকাল বুধবার দুপুরে বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালীন সময়ে দেলোয়ার হঠাৎ প্রবেশ করে শিক্ষর্থীদের সামনে শিক্ষক এনামুলকে এলোপাথাড়ি কিল ঘুষি ও চর থাপ্পর মারে। এসময় সে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়ে বিদ্যালয় ত্যাগ করে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষক এনামুল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযোগ আমলে নিয়ে নিয়মিত মামলা হিসেবে রুজু করে অভিযুক্ত দেলোয়ারকে গ্রেফতার করে।

এ বিষয়ে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন সেলিম বলেন, দেলোয়ার খাঁন আমাদের উপজেলা আওয়ামী সদস্য। তবে তার গ্রেফতারের বিষয়টি আমার জানা নেই।

জানতে চাইলে মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, শিক্ষক লাঞ্ছিতের ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।