মেইন ম্যেনু

মৌসুমী লাঞ্ছিত হননি, তবে ড্যানি বেয়াদব : মিশা

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন নিয়ে রয়েছে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ। এবার সভাপতি পদে মিশা সওদাগর। অন্যদিকে একই পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন মৌসুমী। তবে সোমবার (১৪ অক্টোবর) বিএফডিসিতে খল অভিনেতা ড্যানিরাজের হাতে লাঞ্ছনার শিকার হয়েছেন মৌসুমী। ড্যানিরাজ মৌসুমীকে ধাক্কা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

তবে মৌসুমীকে ধাক্কা দেয়ার বিষয়টি মিথ্যে বলে দাবি করেন সমিতির বর্তমান সভাপতি মিশা সওদাগর। তিনি বলেন, ‘আমার সামনে এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। তবে সমিতিতে লোক সংখ্যা বেশি হওয়ায় বিশৃঙ্খলা হয়। মৌসুমির ঘটনা নিয়ে মিশা আরও বলেন আপনি কে?’ এমন প্রশ্ন ড্যানি করেছে। এটা ড্যানির বেয়াদবী। একজন শিল্পী হয়ে আরেক শিল্পীকে সে এভাবে বলতে পারে না।

এদিকে, বিষয়টি নিয়ে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শিল্পীদের মধ্যে ক্ষমতা পাওয়ার লোভটা এখন বেশি। তারা ক্ষমতা ছাড়া কিছু ভাবেন না। এক কথায় তারা শিল্পী নামের…! শুধুমাত্র ক্ষমতার লোভ তাদের মধ্যে। শিল্পীদের এমন ক্ষমতার জোরাজুরির কারণে চলচ্চিত্রের এ অবস্থা। নামে শিল্পী মূলত ক্ষমতার কাণ্ডারীর জন্যই আজকে সমিতিতে এ কাণ্ড।

উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর ২০১৯-২১ মেয়াদের শিল্পী সমিতির আসন্ন নির্বাচনের খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হয়।



মন্তব্য চালু নেই