শিরোনাম:

ময়মনসিংহের ভালুকায় ময়লা পানির গর্তে শিশুর লাশ, সৎমা গ্রেফতার

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নে ময়লা পানির গর্ত থেকে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সৎ মাকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত শিশু একই এলাকার মাহমুদুল হাসানের ছেলে মো. মারুফ (৬)। এর আগে সোমবার রাত ১১টায় ওই ইউনিয়নের জামিদিয়া এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা জানান, মাহমুদুল তার প্রথম স্ত্রীকে তালাক দিয়ে আরেকটি বিয়ে করে। এ কারণে মারুফ মায়ের আদর থেকে বঞ্চিত ছিল।

অন্যদিকে সৎ মা তাকে ঠিকমতো আদর করত না। তারা আরও জানান, সোমবার রাত ১০টায় শিশু মারুফ ঘর থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হলে পরিবার ও প্রতিবেশীরা তাকে খোঁজাখুঁজি করে৷ একপর্যায়ে বাড়ির লোকজনের গোসলের পানি যাওয়ার ছোট গর্তে মরদেহটি দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে মরদেহ উদ্ধার করে।

মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) সকালে ভালুকা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাহাঙ্গীর জানান, সোমবার রাত ১১টায় শিশু মারুফের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ইতোমধ্যে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, শিশু মারুফের গলায় ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সৎ মা তাকে হত্যা করে পানির গর্তে ফেলে দিয়েছে। সৎ মাকে আটক করা হয়েছে। মামলাও প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।