যশোরের বেনাপোলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ পালিত

যশোরের শার্শা উপজেলার বেনাপোলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ-২০২০ পালন করা হয়েছে।

“সচেতনতা প্রস্তুতি ও প্রশিক্ষণ দুর্যোগ মোকাবিলায় সর্বোত্তম উপায়” এই শ্লোগান কে সামনে রেখে ফায়ার সপ্তাহ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) সকালে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ও সিভিল ডিফেন্সের ইনচার্জ তৌহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে ফায়ার সপ্তাহ-২০২০ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স যশোরের সহকারী পরিচালক মতিয়ার রহমানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা, গন্যমান্য ব্যক্তি এবং ইলেকট্রিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি পুলক কুমার মন্ডল পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সুচনা করেন। এরপর ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তাগণ চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত জনসেবাই ফায়ার সার্ভিসের কাজ ও অগ্রনি ভুমিকার কার্যকরী ভূমিকা তুলে ধরেন। এরপর নাভারন থেকে বেনাপোল জিরো পয়েন্ট পর্যন্ত র‍্যালির মধ্যে দিয়ে ফায়ার সপ্তাহ পালন করেন।

স্বাগত বক্তব্যে ফায়ার সার্ভিসের তথ্য উপস্থাপন করে জানান, চলতি বছরে উপজেলায় মোট আগুনের ঘটনা ঘটে ৩৯ টি। এর মধ্যে ক্ষতি সাধন হয় ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। উদ্ধার করা হয় ৯ লক্ষ ৩০ হাজার সমপরিমাণ টাকা। সড়ক দূর্ঘটনাসহ অন্যান্য দূর্ঘটনার সংখ্যা ৬২টি। এর মধ্যে আহত ভাবে উদ্ধার করা হয় ৬৪ জনকে। এ ক্ষেত্রে নিহত উদ্ধার করা হয় ১ জনকে। সর্বপরি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস সেবা দেওয়া হয় ১৬৩টি। সে সেবায় রোগী পরিবহন করা হয় ১৬৬ জন।

“প্রশিক্ষণ পরিকল্পনা প্রস্তুতি, দূর্যোগ মোকাবিলায় আনবে গতি” এই প্রতিপাদ্যে অগ্রনি ভুমিকা রাখার ব্রত নিয়ে বেনাপোল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স করোনা কালিন সময়েও কাজ করে যাচ্ছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশের এই বীর সেনাদের প্রতি গভীর ভাবে ভালবাসা জ্ঞাপন করেন আগত অতিথিগণ।



মন্তব্য চালু নেই