মেইন ম্যেনু

যেভাবে চৌরাস্তা ক্রসিং বানালে থাকবে না ট্রাফিক জ্যাম!

ট্রাফিক জ্যাম এখন জাতীয় সমস্যায় পরিণত। আগে এ সমস্যা ঢাকাকেন্দ্রিক থাকলেও এখন বাণিজ্যিক শহর চট্টগ্রামসহ বিভাগীয় শহরেও ঢাকার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ট্রাফিক জ্যাম লেগে থাকে।

প্রতিদিনই নষ্ট হতে থাকে কর্মঘণ্টা। ট্রাফিক জ্যাম রোধে বা কমাতে ঢাকাসহ দেশব্যাপী ফ্লাইওভার, ফুটওভার, আন্ডারপাসসহ নানা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। তবু সমাধান তেমন একটা মিলছে না।

এবার ট্রাফিক জ্যাম রোধে চৌরাস্তা ক্রসিং সিস্টেম উদ্ভাবন করেছেন বাংলাদেশের একজন গবেষক, বিজ্ঞানী ও লেখক মুহম্মদ হাফিজুর রহমান।

তিনি এই পদ্ধতির নাম দিয়েছেন ‘হানড্রেট পারসেন্ট ননস্টপ ট্রাফিক অন ক্রসরোড ইন দ্য হাইওয়ে’।

মুহম্মদ হাফিজুর রহমানের দাবি, সরকার যদি দেশের গুরুত্বপূর্ণ মহাসড়কের চৌরাস্তায় তার এই বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে ক্রসিংগুলো নির্মাণ করে, তা হলে ট্রাফিকবিহীন ননস্টপ যানবাহন চলবে। এমনকি পথচারীরাও নির্বিঘ্নে মহাসড়ক পারাপার হতে পারবে।

পদ্ধতিটি বাস্তবায়নে একদিকে সরকারের অর্থের অপচয় কমবে, অন্যদিকে যাত্রী-চালকদের দুর্ভোগ কমবে এবং সড়ক দুর্ঘটনাও বহুলাংশে কমে যাবে বলে দাবি এই বিজ্ঞানীর।

ইতিমধ্যে উত্তরাঞ্চলের যানজট নিরসনে বিজ্ঞানী মুহম্মদ হাফিজুর রহমানের উদ্ভাবনকৃত চৌরাস্তা ক্রসিংয়ের ডিজাইন অনুযায়ী উত্তরাঞ্চলের প্রবেশদ্বার সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুল গোলচত্বর নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন সিরাজগঞ্জবাসী।

নিজের উদ্ভাবন বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে মুহম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, চৌরাস্তা ক্রসিংই হলো বাংলাদেশে ট্রাফিক জ্যামের প্রধান কারণ। সব গাড়ি এসে এখানে থেমে যায়। চৌরাস্তা ক্রসিংয়ে কমপক্ষে ১৫-২০ মিনিট দাঁড়িয়ে থাকতে হয় গাড়িকে। কোথাও কোথাও তো আধাঘণ্টাতেও সিগন্যাল শেষ হয় না। আর এ জন্য শত শত গাড়ি চৌরাস্তা ক্রসিংয়ের চারদিকে জমতে থাকে, যা দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি করে।

তিনি বলেন, এ জন্য ঢাকাসহ মহাসড়কের চৌরাস্তাগুলোর ডিজাইনে পরিবর্তন আনতে হবে। আমার ডিজাইন অনুযায়ী চৌরাস্তা ক্রসিং নির্মাণ করলে কোনো গাড়িকে এক সেকেন্ডের জন্যও ক্রসিংয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হবে না। তাই কোনো চৌরাস্তায় ট্রাফিক পুলিশেরও দরকার হবে না।

তবে তার সেই ডিজাইনটি বাস্তবায়ন করতে হলে চৌরাস্তা ক্রসিংয়ের উভয় দিক মিলে ২৪০০ থেকে ৩০০০ ফুট জায়গার প্রয়োজন হবে বলে জানান তিনি। আর প্রশস্ততার জন্য ১৬০ ফুট জায়গা লাগবে।

মহাসড়কে স্বল্পব্যয়ে সেই জায়গা নিয়ে ক্রসিংগুলো নির্মাণ করা সম্ভব বলে জানান তিনি।



মন্তব্য চালু নেই