শিরোনাম:

যেসব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান লকডাউনের আওতামুক্ত

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে সারা দেশে দ্বিতীয় দফায় এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

রবিবার (৪ এপ্রিল) এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপনে বিদেশগামী বা বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের লকডাউন বাইরে রাখা হয়েছে।

এছাড়া আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিষেবা, যেমন ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্য সেবা, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস বা জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, সংবাদপত্র, বন্দরসমূহের (স্থলবন্দর, নদীবন্দর ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, সেখানকার কর্মচারী ও যানবাহন এ লকডাউনের বাইরে থাকবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সরকারি/ আধাসরকারি/ স্বায়ত্বশাসিত অফিস ও আদালত এবং বেসরকারি অফিস কেবল জরুরি কাজ সম্পাদনের জন্য সীমিত পরিসরে প্রয়োজনীয় জনবল স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থাপনায় অফিসে আনা-নেওয়া করতে পারবে।

এ ছাড়া শিল্প-কলকারখানা ও নির্মাণ কাজ চালু থাকবে। শিল্প-কলকারখানার শ্রমিকদের স্ব স্ব প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থাপনায় আনা-নেওয়া করতে হবে।

বিজিএমইএ ও বিকেএমইএ কর্তৃক শিল্প-কলকারখানা এলাকায় নিকটবর্তী সুবিধাজনক স্থানে তাদের শ্রমিকদের ফিল্ড হাসপাতাল বা চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।



মন্তব্য চালু নেই