মেইন ম্যেনু

রাবিতে শিক্ষার্থীর মাথায় ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ফিরোজ নামের এক শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করেছে স্থানীয় কয়েকজন ছিনতাইকারী।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়াম সংলগ্ন শহীদ হবিবুর রহমান মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

আহতাবস্থায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টার থেকে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহত ফিরোজ রাবি অর্থনীতি বিভাগের প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী।

এদিকে ঘটনার পর পরই রাবির প্রধান ফটকের সামনে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা। মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে যাত্রীরা ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন।
রাত ১১টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের অবরোধ অব্যাহত ছিল।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাতে শহীদ হবিবুর রহমান মাঠ দিয়ে হলের দিকে যাচ্ছিলেন ফিরোজ। এ সময় কয়েকজন যুবক তার পথরোধ করে। একপর্যায়ে ছুরি দেখিয়ে মানিব্যাগ ও টাকাসহ সবকিছু দিতে বলে। এতে অস্বীকৃতি জানালে মাথায় ছুরিকাঘাত করে ছিনতাইকারীরা। এসময় ফিরোজ চিৎকার শুরু করলে মোটরসাইকেলে মাদার বখশ হলের সামনে দিয়ে ছিনতাইকারীরা পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর আবু সাঈদ মো. নাজমুল হায়দার বলেন, ক্যাম্পাসে অনেক দিন থেকেই এ রকম ঘটনা ছিল না। এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। ছিনতাইকারীরা শিক্ষার্থীর মাথায় ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে আহত শিক্ষার্থীর বন্ধুরা বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেলে নিয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে অপরাধীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

রামেকে ভুক্তভোগীর সঙ্গে থাকা আরেক সহকারী প্রক্টর এসএম মোখলেসুর রহমান জানান, ফিরোজের মাথায় সরাসরি চাকু দিয়ে আঘাত করেছে ছিনতাইকারীরা। বাম কাঁধেও আঘাত রয়েছে। তবে ফিরোজ এখন আশঙ্কামুক্ত।

এ ব্যাপারে মতিহার থানার ওসি হাফিজুর রহমান বলেন, মহাসড়ক থেকে অবরোধ তুলে নেয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের অনুরোধ করা হয়েছে। আশা করছি, অল্প সময়ের মধ্যে যান চলাচল স্বাভাবিক হবে।



মন্তব্য চালু নেই