মেইন ম্যেনু

লিটন নন্দীসহ গ্রেফতার চারজন আদালতে

সুপ্রিম কোর্টের সামনে থেকে রোমান যুগের ন্যায়বিচারের প্রতীক লেডি জাস্টিসের আদলে গড়া ভাস্কর্যটি সরানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করার সময় গ্রেফতার বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দীসহ চারজনকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেছেন পুলিশ।

শনিবার তাদের ঢাকা সিএমএম আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলা তদন্তকারী অফিসার। অপরদিকে তাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। বিকাল ৩টায় ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

গ্রেফতার অপর তিন জন হলেন-বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা কলেজের সভাপতি মোরশেদ আলীম, লালবাগ থানার সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমীন হোসেন জয় ও উদিচির সম্পাদক মণ্ডলীর নেতা আরিফ নুর।

এর আগে তাদের ঘটনাস্থল থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃপক্ষ ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার কাজ শুরু করে। এরপর শুক্রবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু হয়।

গেল কয়েকমাস ধরেই ভাস্কর্যটি সরিয়ে নেয়ার দাবি জানিয়ে আসছিল হেফাজতে ইসলাম।

শুক্রবার ভাস্কর্য সরিয়ে নেয়ার প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে ও জলকামান থেকে জল ছিটিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ।

শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দীসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১৪০-১৫০ জনকে আসামি করে শাহবাগ থানায় মামলা করেন উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোফাচ্ছারুল ইসলাম। মামলাটি তদন্ত করছেন শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মীর্জা মো. বদরুল হাসান।



মন্তব্য চালু নেই