শিরোনাম:

শরীরে রক্ত চলাচল বাড়াতে যে ৫ খাবার

রক্তে মাংসে গঠিত আমাদের শরীর। রক্ত শরীরে পুষ্টি ও অক্সিজেন কোষে বহন করে নিয়ে যায় আর বিপাকীয় বর্জ্যকে শরীর থেকে বের করে দেয়। তরল এবং কঠিন দুই উপাদানই রক্তে রয়েছে। রক্ত যে তরল উপাদান থাকে তা হলো প্লাজমা। আর সলিড উপাদান হিসেবে থাকে লোহিত রক্ত কণিকা, শ্বেত রক্ত কণিকা, প্লাটিলেট। অনেক কারণেই আমাদের শরীর থেকে রক্ত বেরিয়ে যেতে পারে এবং ওই রক্ত আবার তৈরির ক্ষমতা শরীরের রয়েছে। তবে কিছু খাবার রয়েছে যা শরীরে রক্ত চলাচলের পরিমাণ বাড়ায়।

অনেকেরই রক্ত চলাচলের গতি স্বাভাবিক না এবং এতে করে দূর্বলতা, মাথা ঝিমঝিম করার অনুভূতি দেখা দেয়। এতে করে নার্ভের ক্ষতি, টিস্যুর ক্ষতি এমনকি স্ট্রোক পর্যন্ত হতে পারে। এমন কিছু খাবারের কথা চলুন জেনে নেওয়া যাক যা রক্ত চলাচল স্বাভাবিক করে।

বিটরুট: বিটরুট অ্যান্টি অক্সিডেন্টের অন্যতম উৎস। কাচা বিটরুট শরীরে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে, রক্ত বিশুদ্ধ করে এবং লিভার সুস্থ রাখে।  আয়রন ও অ্যান্টি অক্সিডেন্টের সমন্বয় রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে এবং রক্তকে বিশুদ্ধ করে তোলে।

বেরি: স্ট্রবেরি, ব্লুবেরি, রাসবেরি,মালবেরি সবই শরীরের জন্য ভালো। বেরি রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে সেইসঙ্গে হার্ট সুস্থ রাখে।

বেদানা: রসালো, মিষ্টি ফলটি পলিফেনল অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং নাইট্রেটের উৎস যা রক্ত প্রবাহের জন্য রক্তনালীর পথকে প্রসারিত করে। জুস বানিয়ে বাস সালাদ হিসেবে বেদানা খেতে পারেন।

রসুন: রসুনের অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।  রসুন হজমের সমস্যা দূর করে, ব্লাড প্রেসার কমায়, রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ায়, হার্টের রোগের বিরুদ্ধে কাজ করে। এত কিছুর পরেও রসুনের একটি আশ্চর্য গুণ হলো রক্ত চলাচল বাড়ায়।

দারুচিনি: দারুচিনির উপকারিতার কথা অনেক গবেষণায় বারবার উঠে এসেছে। দারুচিনি রক্তনালীকে প্রসারিত রেখে রক্ত চলাচল বাড়ায়। সেই সাথে দারুচিনি রক্ত চলাচলে কোন প্রকার বাধা দেয় না।



মন্তব্য চালু নেই