মেইন ম্যেনু

শিবচরে স্পিডবোট ডুবির দূর্ঘটনায় নিখোঁজ দুইজনের মরদেহ উদ্ধার

মাদারীপুর প্রতিনিধি : শনিবার দুপুর ১২টার সময়ে মাদারীপুর জেলার শিবচরের কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌ রুটের পদ্মা নদীতে স্পিডবোট ডুবির যাওয়া পরে নিখোঁজ শিশুসহ দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ উদ্ধার হলো শিশু আমির হামজার (৭) ও এক অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবকের। উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের খাড়াকান্দি গ্রামের ইমরান ফরাজীর ছেলে নিহত শিশুটি। স্পিডবোট ডুবির এ ঘটনায় তিনজনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার সূত্র থেকে জানা যায়, দুপুরে কাঁঠালবাড়ী ঘাটের উল্টো দিকে পদ্মা নদীর চরে শিশুটির মরদেহ পানিতে ভাসতে দেখতে পায় স্থানীয়ারা। পরে পুলিশে খবর দিলে ঐ স্থানে গিয়ে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে। এর পর স্থানীরা কাঁঠালবাড়ী ঘাটের একটু দূরে ভাসতে দেখাতে পায় এক যুবকের মরদেহ। পুলিশে খবর দিলে সেখান থেকে ঐ যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে। এখন পর্যন্ত ঐ যুবকের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

গত বৃহস্পতিবার ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ঘাট কর্তৃপক্ষ স্পিডবোটের চলাচলের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। কিন্তু সেই নিষেধ অমান্য করে চালাচল করতে গিয়ে কাঁঠালবাড়ী ঘাটের কাছে ট্রলারের সাথে ধাক্কা গেলে যাত্রীদের নিয়ে ডুবে যায় স্পিডবোটটি। এ ঘটনায় গুরুতর আহতাবস্থায় মো. মুরাদ নামের এক যুবকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়ে থাকে। সেই সময়ে শিশু আমির হামজাসহ এক যুবক নিখোঁজ হয়। এ দুর্ঘটনায় নিহত শিশুটির বাবা-মা ও ভাই তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।



মন্তব্য চালু নেই