সাতক্ষীরা মসজিদের কমিটি নিয়ে সংঘর্ষ, আহত-৩, হৃদরোগে একজনের মৃত্যু

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে মসজিদ কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সেক্রেটারীর বাবা।
শুক্রবার দক্ষিণ কাশিবাটি জামে মসজিদে জুম্মার নামাজের পর এ ঘটনা ঘটে।

নজরুল ইসলাম (৬০) নলতা ইউনিয়নের পাইকাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

তিনি মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলমের বাবা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুম্মার নামাজের পর স্থানীয় ইমরান আলীর ছেলে আব্দুল কালাম কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে একজনকে ধাক্কা দিলে মারামারির সুত্রপাত ঘটে। এসময় এক গ্রুপের লোকজন আবুল কালামকে মারপিট শুরু করলে কালামের ভাইয়েরা নওশের আলীর ছেলে শাহাজানকে মাথায় আঘাত করে। এতে তার মাথা ফেটে যায়৷ এসময় নাজের আলীর ছেলে রস্তুম মোড়ল, সাঈদ মোড়ল আহত হয়।

সুত্র মতে, সম্প্রতি মসজিদের কমিটি কমিটি গঠন হয়। এতে ফজলুল রহমান সভাপতি ও মাহাবুবুল আলম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়। একটি পক্ষ বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি।

শুক্রবার স্থানীয় রজব আলী সরদার, বাপ্পি সরদার, রউফ সরদার, আনছার সরদার সমস্যা সমাধানের জন্য আসেন। কিন্তু একটি পক্ষ সরদারদের কমিটিতে নেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন। এতে বিপত্তি বেধে যায়। শুরু হয় মারামারি।

এদিকে, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের উভয় গ্রæপের মধ্যে যখন মারপিট চলছিল তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলমের বাবা নজরুল ইসলাম হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

কালিগঞ্জ থানায় পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান, এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



মন্তব্য চালু নেই