মেইন ম্যেনু

হঠাৎ করেই কমলো স্বর্ণের দাম

দফায় দফায় দাম বাড়ার পর হঠাৎ করেই স্বর্ণের দাম কমানোর ঘোষণা দিয়েছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। প্রতি ভরি স্বর্ণে এক হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে নতুন দর নির্ধারণ করেছে সংগঠনটি।

মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বাজুস। বুধবার (১১সেপ্টেম্বর) থেকে স্বর্ণের এ নতুন দর কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে বাজুস। ফলে প্রতি ভরি (১১.৬৬৪ গ্রাম) ২২ ক্যারেট সোনার দাম ৫৫ হাজার ৬৯৫ টাকা থেকে এক হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে নতুন দামে ক্রয় করা যাবে।

এর আগে ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে প্রতি ভরি সোনা ১ হাজার ১৬৬ টাকা পর্যন্ত সোনার দাম বাড়ালো হয়। এর আগে গত সোমবার (৫ আগস্ট) প্রতি ভরি সোনায় সর্বোচ্চ ১ হাজার ১৬৬ টাকা দাম বাড়িয়েছিল সোনা ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাজুস।

নতুন দাম অনুযায়ী ভরি প্রতি স্বর্ণে ১ হাজার ১৬৬ টাকা পর্যন্ত কমানো হয়েছে। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে রুপার দাম।

নতুন দর অনুযায়ী, প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের অর্থাৎ ২২ ক্যারেটের স্বর্ণ ৫৬ হাজার ৮৬২ টাকা, ২১ ক্যারেট ৫৪ হাজার ৫২৯ এবং ১৮ ক্যারেট স্বর্ণ বিক্রি হবে ৪৯ হাজার ৫১৩ টাকায়। আর সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণের ভরি কমে দাঁড়াবে ২৯ হাজার ১৬০ টাকা। আর প্রতি ভরি ২১ ক্যারেট রুপার (ক্যাডমিয়াম) দাম পূর্বের নির্ধারিত ৯৩৩ টাকাই বহাল রাখা হয়েছে।

সারা দেশের স্বর্ণের দোকানগুলোতে মঙ্গলবার ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৫৮ হাজার ২৮ টাকা, ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫৫ হাজার ৬৯৫ এবং ১৮ ক্যারেটের স্বর্ণ প্রতি ভরি ৫০ হাজার ৬৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া সনাতন পদ্ধতিতে স্বর্ণ ৩০ হাজার ৩২৬ টাকা আর রুপা ৯৩৩ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজুসের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা জানান, দেশের স্বর্ণের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে সঙ্গে ওঠা নামা করে। আন্তর্জাতিক বাজারে কিছুটা হ্রাস পাওয়ায় দেশীয় বুলিয়ন মার্কেটেও স্বর্ণের মূল্য হ্রাস পেয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই