মেইন ম্যেনু

হাওরের মানুষের কাটছে না দুঃখ দুর্দশা

সুনামগঞ্জ জেলার হাওর পাড়ের মানুষের দুঃখ দুর্দশা যেনো কাটছেইনা। ফসল হারানো দুর্গত মানুষের এখন দিন কাটছে ভিজিএফ কার্ড আর খোলাবাজারে কমমূল্যে চালের আশায়। সরকারি সহযোগিতা মিললেও তা প্রয়োজনের তুলনায় নগণ্য বলে অভিযোগ।

দু’মাস আগে পাহাড়ি ঢল এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের ফসল রক্ষা বাঁধ ভেঙ্গে নষ্ট হয়ে যায় হাওরের প্রায় ৮৫ ভাগ ফসল। বছরের একমাত্র ফসল হারিয়ে দুর্গতিতে পড়েন হাওর পাড়ের মানুষেরা। এমনিতেই বর্ষা মৌসুমে হাওরাঞ্চলের মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েন। তার ওপর ফসল হারিয়ে এবার মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে পরিবারগুলো।

বিপন্ন মানুষের সহযোগিতা সরকারের পক্ষ থেকে নানা ধরণের পদক্ষেপ নেয়া হয়। কিন্তু তাও প্রয়োজনের তুলনায় একেবারে কম।

ঈদ উপলক্ষে সরকারের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে চাল সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে জেলা প্রশাসন। ঈদ উদযাপনে সরকারের পক্ষ থেকে কোন ধরণের সহযোগিতা না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পরিবেশ ও হাওর উন্নয়ন সংস্থা।

বর্তমানে জেলার ১১ উপজেলার একশ ১০টি কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রতিদিন এক টন চাল ১৫ টাকা কেজি দলে খোলাবাজারে বিক্রি করা হচ্ছে।

সুনামগঞ্জের হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য সরকার দু’মাস আগে দেড় লাখ ভিজিএফ কার্ড বিতরণ করেছিলো। এর আওতার বাইরেও আরও প্রায় দেড় লাখ পরিবার মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তারা পাননি এখন পর্যন্ত কোন সাহায্য-সহযোগিতা। এমনটাই অভিযোগ করেছেন হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত মানুষেরা।



মন্তব্য চালু নেই