মেইন ম্যেনু

হাজারী আ.লীগের উপদেষ্টা, কিছুই জানেন না কাদের

ফেনীর আলোচিত সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল হাজারীকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য নির্বাচিত করার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এমন খবর তার জানা নেই। এই খবর কোথা থেকে এলো তার বলতে পারছেন না তিনি।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের এ কথা বলেন।

বুধবার রাতে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে জয়নাল হাজারীকে দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে মনোনয়ন দিয়েছেন বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

দুপুরে জয়নাল হাজারীর বিষয়ে ওবায়দুল কাদেরের কাছে জানতে চান সাংবাদিকরা। এ সময় সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আমার এ ধরনের খবর জানা নেই। খবর কোথা থেকে এলো, তাও জানি না। কে দিলো এই খবর, তাও জানি না। শুধু এটুকু জানি, ফেনী জেলা সম্মেলন হবে। একটা তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। সেখানে কথা প্রসঙ্গে জয়নাল হাজারী অসুস্থ, তার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী কিছু সহযোগিতা করেছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তিনি (জয়নাল হাজারী) সিঙ্গাপুর গেছেন কি না নেত্রী সে বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলেন। আমি বললাম, আমার কাছে এসেছিলেন, বলেছিলেন তিনি অপারেশনের জন্য সিঙ্গাপুর যাবেন। এখানে উপদেষ্টা করার কোনো নির্দেশনা নেই।’

১৯৮৪ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন জয়নাল হাজারী। ফেনী-২ (সদর) আসন থেকে ১৯৮৬, ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালে টানা তিনবার সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় ২০০১ সালের ১৭ আগস্ট দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান জয়নাল হাজারী। সংসদ সদস্য হিসেবে তার শেষ মেয়াদে নানা বিতর্কে জড়ান জয়নাল হাজারী। এ কারণে ২০০৪ সালে দল থেকে বহিষ্কৃত হন। এর পর দীর্ঘদিন রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয় ছিলেন তিনি। ফেনী থেকে হাজারিকা নামে প্রকাশিত একটি দৈনিকের সম্পাদকও তিনি।



মন্তব্য চালু নেই