শিরোনাম:

২০২২ সালের গ্লোবাল ব্র্যান্ডে সেরা পাঁচ এ স্যামসাং

স্যামসাং ইলেকট্রনিকস সম্প্রতি আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড কনসালটেন্সি প্রতিষ্ঠান ইন্টারব্র্যন্ডের ২০২২ সালের সেরা পাঁচ গ্লোবাল ব্র্যান্ডগুলোর একটি হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। টানা দু’বছর ব্র্যান্ড ভ্যালুর প্রবৃদ্ধি ১০% এর উপরে রেখেছে স্যামসাং।

ইন্টারব্র্যান্ডের মতে, স্যামসাং -এর ব্র্যান্ড ভ্যালু ৮৭.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যায়ন করা হয়েছে – গত বছরের বৃদ্ধির তুলনায় ১৭ শতাংশ বেশি, যা ২০২১ সালে ছিলো ৭৪.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এ বিষয়গুলো, প্রতিষ্ঠানটিকে টানা তিন বছর ধরে শীর্ষ পাঁচে জায়গা করে নিতে সক্ষম করেছে।

প্রতি বছর ইন্টারব্র্যান্ড কোম্পানির আর্থিক কর্মক্ষমতা, গ্রাহকের ক্রয়ের ওপর ব্র্যান্ডের প্রভাব এবং ব্র্যান্ডের প্রতিযোগিতা সহ বেশ কিছু বিষয় বিবেচনা করে সেরা গ্লোবাল ব্র্যান্ডের নাম ঘোষণা করে। চলতি বছর, ইন্টারব্র্যান্ডের পক্ষ থেকে এ স্বীকৃতির জন্য স্যামসাং ইলেকট্রনিকস এর আর্থিক কর্মক্ষমতাকে প্রাক-মহামারি পর্যায়ে পুনরুদ্ধার করা এবং উন্নত গ্রাহক অভিজ্ঞতার জন্য পণ্য উদ্ভাবনের জন্য ক্রমাগত প্রচেষ্টার স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের এই অর্জনের কারণ হিসেবে ইন্টারব্র্যান্ড বিভিন্ন কারণ উল্লেখ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে সমন্বয় বাড়ানোর জন্য ডিভাইস এক্সপেরিয়েন্স বিভাগ তৈরি করা এবং গ্রাহকদের একটি নিরবচ্ছিন্ন অভিজ্ঞতা প্রদান, প্রতিষ্ঠানটি এর মাল্টি ডিভাইস কানেকশন অভিজ্ঞতা শক্তিশালী করার জন্য কাস্টমার এক্সপেরিয়েন্স সেন্টার চালু, ইনক্লুসিভ ইকোসিস্টেম ও মাল্টিডিভাইস অভিজ্ঞতার জন্য ও ইনক্লুসিভ ইকোসিস্টেম এর জন্য এর প্রোডাক্ট ক্যাটাগরিতে স্মার্টথিংকস এর অন্তর্ভুক্তিকরণ, ধারাবাহিক বিনিয়োগের মাধ্যমে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (এআই), ফাইভজি, অটোমোটিভ ও রোবোটিকস এর মতো অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও স্যামসাংয়ের ফিউচার জেনারেশন ল্যাব চালু।

এ নিয়ে স্যামসাং ইলেকট্রনিকসের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও চিফ মার্কেটিং অফিসার ওয়াইএইচ লি বলেন, “স্যামসাং ইলেকট্রনিকস টানা দু’বছর ব্যান্ড ভ্যালু এর ক্ষেত্রে ডাবল-ডিজিট প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। এ অর্জনে আমাদের বৈশ্বিক ক্রেতাদের বেশ সমর্থন ছিলো। ক্রেতাদের উন্নত ও সন্তোষজনক অভিজ্ঞতা প্রদানের জন্য পুরো প্রতিষ্ঠান দলগতভাবে কাজ করছে।”

বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডের ব্যানারে উন্নত গ্রাহকসেবা দিয়ে যাচ্ছে স্যামসাং । বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম পরিচালিত ব্র্যান্ড ইক্যুইটি স্টাডি অনুযায়ী স্যামসাং টানা চার বছর ধরে বাংলাদেশে নম্বর ১ হ্যান্ডসেট ব্র্যান্ডের স্বীকৃতি অর্জন করেছে। টিভি, রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন ও এয়ার কন্ডিশনার এর মতো কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস পণ্য বিক্রিতেও স্যামসাং বড় মার্কেট শেয়ার দখল করেছে। উদ্ভাবনী পণ্য নিয়ে আসার মাধ্যমে ব্র্যান্ড হিসেবে স্যামসাংকে বাংলাদেশে ’ইনোভেশন’ এর সারথি বলা যায়। নিত্য নতুন উদ্ভাবন নিয়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্যামসাং নিজেদের মুন্সিয়ানা দেখিয়েছে। স্যামসাংয়ের সাম্প্রতিক সময়ের উদ্ভাবনগুলো হলো: স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড/ফ্লিপ সিরিজ, স্যামসাং নিওকিউ এল.ই.ডি ৮কে টিভি। ক্রেতাদের কাছে অত্যাধুনিক পণ্য পৌঁছে দিতে স্যামসাং নতুন মডেলের পণ্য গ্যালাক্সি এ০৪এস দেশের বাজারে উন্মোচন করেছে। এটি একটি বাজেট-বান্ধব হ্যান্ডসেট। স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকসের পণ্যগুলোও ক্রেতাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থা চিন্তা করে বিভিন্ন মূল্যের পণ্য বাজারজাত করেছে ।

এই অর্জন ছাড়াও, স্যামসাং ইলেকট্রনিকস সম্প্রতি ফোর্বস কর্তৃক বিশ্বের সেরা এমপ্লয়ার্স ২০২২ এর তালিকায় ১ নম্বর অবস্থান অর্জন করেছে। এ নিয়ে ব্র্যান্ডটি টানা তৃতীয় বছরের জন্য বেস্ট এমপ্লয়ারের স্বীকৃতি পেয়েছে। ইমেজ, ইকোনমিক ফুটপ্রিন্ট, ট্যালেন্ট ডেভেলপমেন্ট, লিঙ্গ সমতা ও সামাজিক দায়বদ্ধতার বিষয়গুলো বিবেচনা করে ফোর্বস প্রতিবছর বেস্ট এমপ্লয়ারের স্বীকৃতি প্রদান করে। স্যামসাং ইলেকট্রনিকস সবসময় এর কর্মীদের প্রাধান্য দিয়ে থাকে এবং কর্মীদের সেরা কর্মপরিবেশ প্রদানেও ব্র্যান্ডটি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।