শিরোনাম:

৫০ বছর বয়সে মা হলেন নাওমি ক্যাম্পবেল

কন্যাসন্তানের মা হলেন ব্রিটিশ সুপারমডেল নাওমি ক্যাম্পবেল। ৫০ বছর বয়সী এই তারকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি শেয়ার করে সুখবরটি জানিয়েছেন। অথচ এর আগে ঘুণাক্ষরেও তিনি সন্তানসম্ভবা হওয়ার কথা জানাননি! তাই চমকে গেছেন ভক্তরা।

মঙ্গলবার (১৮ মে) ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করা নাওমির ছবিতে দেখা যাচ্ছে, তুলতুলে দুটি পা তার একহাতের তালুতে। এর ক্যাপশনে লেখা, ‘ফুটফুটে সুন্দর একটি আশীর্বাদ আমাকে মা হিসেবে বেছে নিয়েছে। জীবনে এই কোমল প্রাণকে পেয়ে আমি সম্মানিত। এটা ভাষার প্রকাশ করা যাবে না। আমার পরীটার সঙ্গে চিরকালের বাঁধন ভাগাভাগি করবো। এর চেয়ে ভালো লাগা আর হয় না।’

ডিজাইনার মার্ক জ্যাকবস, ব্রিটিশ ম্যাগাজিন ভোগ-এর সম্পাদক এডওয়ার্ড এনিনফুল অভিনন্দন জানিয়েছেন নাওমিকে। তবে মেয়ের নাম কিংবা কোন প্রক্রিয়া মা হয়েছেন সেসব কিছুই জানাননি তিনি।

নাওমির মা ভ্যালেরি মরিস ক্যাম্পবেল একই ছবি শেয়ার করে লিখেছেন ইনস্টাগ্রামে, ‘আমি দারুণ উচ্ছ্বসিত। নানি হওয়ার জন্য মুখিয়ে ছিলাম।’

২০১৭ সালে লন্ডনের বিনামূল্যের পত্রিকা ইভেনিং স্ট্যান্ডার্ডকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নাওমি মা হওয়ার ইচ্ছের কথা জানিয়েছিলেন। তিনি তখন বলেন, ‘সবসময় মা হওয়ার কথা ভাবি। এখন বিজ্ঞান এগিয়ে যাওয়ায় মন চাইলেই তা হতে পারবো বলে মনে হয়।’

ক্যাটওয়াক তারকা নাওমি ক্যাম্পবেলের জনদরদি হিসেবে সুনাম আছে। ২০০৫ সালে তিনি গড়ে তোলেন ফ্যাশন ফর রিলিফ নামের একটি দাতব্য সংস্থা।

নাওমি ক্যাম্পবেল হলেন ফরাসি ভোগ এবং টাইম ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে আসা প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মডেল। আমেরিকান ভোগ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদকন্যা প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মডেলও তিনিই। কিশোরী বয়সে মডেলিং শুরু করা এই সুন্দরী বিখ্যাত ব্র্যান্ড ভার্সেস, শানেল, প্রাডা এবং ডলচে অ্যান্ড গাবানার মডেল হয়েছেন।



মন্তব্য চালু নেই