মেইন ম্যেনু

৫০ হাজার ছাড়ালো ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫০ হাজারে পৌঁছেছে। যা স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে মশাবাহিত এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা এটাই সর্বোচ্চ। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছে মোট এক হাজার ৯২৯ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪২ হাজার ২৪৩ জন অর্থাৎ আক্রান্তদের ৮৪ শতাংশ সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুসারে,চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত ৪৯ হাজার ৯৯৯ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সরকারি তথ্যমতে, আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছের ৪০ জন। তবে বেসরকারি তথ্যানুযায়ী, মৃতের সংখ্যা প্রায় শতাধিক।

আশার কথা হলো ডেঙ্গু আক্রান্ত হাসপাতালে ভর্তি ৫০ হাজার রোগীর মধ্যে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪২ হাজার ২৪৩ জন অর্থাৎ আক্রান্তদের ৮৪ শতাংশ সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ডেঙ্গু আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৭১৬ জন। তাদের মধ্যে রাজধানীর ৪০টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ১৫ জন এবং অন্যান্য বিভাগীয় হাসপাতালে মোট ডেঙ্গু আক্রান্ত ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৭০১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডাক্তার আয়শা আক্তার গণমাধ্যমকে জানান, গতকাল ১৫ আগস্ট সকাল ৮টা থেকে ১৬ আগস্ট সকাল ৮টা পর্যন্ত নতুন ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৭১৯ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা শহরে আক্রান্ত ৭৫৯ ও বিভাগীয় শহরে আক্রান্ত ৯৬০ জন।

তবে ঈদের আগে ডেঙ্গুর প্রকোপ সংখ্যা কমলেও, ঈদ পরবর্তী বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। শুধু ঈদের ছুটিতে সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে একজন প্রকৌশলীসহ ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ১০ আগস্ট পর্যন্ত সরকারি হিসেবেই সারাদেশে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ২৯। সেখানে গত বুধবার এ সংখ্যা বেড়ে ৪০ জনে দাঁড়িয়েছে। আর গতকালের তিনজনসহ বেসরকারিভাবে মৃতের সংখ্যা শতকের ঘরে পৌঁছেছে।



মন্তব্য চালু নেই