শিরোনাম:

আধুনিকতার ছোয়ায় সাতক্ষীরা থেকে যাচ্ছে গরুর গাড়ি

‘ও কি গাড়িয়াল ভাই, কত রবো আমি পন্থের দিকে চাইয়ারে…’ -এমনি কত গান, কবিতা, ছন্দ, আছে গ্রামের এক সময়কার ঐতিহ্যবাহী বাহন ‘গরুর গাড়ি’ নিয়ে।

কালের বিবর্তনে আর আধুনিকতার ছোয়ায় সাতক্ষীরা থেকে হারিয়ে যাচ্ছে একসময়ের বিলাসী বাহন সেই ‘গরুর গাড়ি’।

বছর কয়েক আগেও গ্রাম বাংলার কৃষকেররা মাঠের ফসল ঘরে তোলার অন্যতম প্রধান বাহন ছিল গরু গাড়ি। আর কয়েক যুগ আগে গ্রামবাংলার মানুষের যাতায়াতের অন্যতম প্রধান বাহন ছিলো গরু গাড়ি। বিয়েশাদি থেকে শুরু করে মানুষের যেকোন যাতায়াতে ‘ছৈ ওয়ালা’ গরু গাড়ি চোখে পড়তো সচারচার। এমনটাই জানালেন প্রবীন ব্যক্তিরা।

তারা বলেন, ‘গ্রামের মহিলাদের যাতায়াত করার জন্য গরুর গাড়িতে ‘ছৈ’ তথা গোলাকার ছাউনি তৈরী করে আর্ত্মীয়স্বজনের বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার একমাত্র বাহন ছিল গরুর গাড়ি। এ ছাড়া গ্রামের সকল প্রকার পণ্য গঞ্জে আনা নেওয়াতে ব‍্যবহৃত ঐতিহ্যবাহী এই বাহন।’

সেই গুরুত্বপূর্ণ গরুর গাড়িটি আজ হারিয়ে যেতে বসেছে ব‍্যস্ততা আর আধুনিকতার ছোয়ায়। তবে এখনো গ্রামাঞ্চলে সামান্য সংখ্যক গরু গাড়ি চোখে পড়ে। যেগুলো মাঠের ফসল বাড়ি আনা নেয়ার কাজে কিছুটা ব্যবহৃত হয়।

ঐতিহ্য আর স্মৃতি ধরে রাখতে গরু গাড়ির ব্যবহার বিলীন করা উচিত নয় বলে মনে করছেন নতুন প্রজন্ম।



মন্তব্য চালু নেই