শিরোনাম:

উচ্চশিক্ষায় শিক্ষার্থীদের জন্য ‘স্টুডেন্ট সাপোর্ট লোন’ দিচ্ছে নর্দান ইউনিভার্সিটি

উচ্চশিক্ষায় শিক্ষার্থীদের জন্য ‘স্টুডেন্ট সাপোর্ট লোন’ (এসএসএল) দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ।

অনার্স ও মাস্টার্স প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীদের জন্য যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছে এনইউবি ও ব্যাংক এশিয়া।

যেসব শিক্ষার্থী অর্থ সংকটের কারণে পড়ালেখা চালিয়ে নিতে পারছেনা বা টিউশন ফি এর কারণে সেমিস্টার ড্রপ দিচ্ছে তাদের জন্য ব্যাতিক্রমী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানান নর্দান ইউনিভার্সিটি। তারা ব্যাংক এশিয়া থেকে সহজ শর্তে ‘স্টুডেন্ট সাপোর্ট লোন’ নিতে পারবেন।

পড়ালেখার সময় বা কর্মজীবনে গিয়ে এই শিক্ষা ঋণ পরিশোধ করবে তারা।

এ উপলক্ষ্যে দু’পক্ষের মধ্যে ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, নর্দান ইউনিভার্সিটির বোর্ড রুমে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আব্দুল্লাহ।

সভাপতিত্ব করেন নর্দান ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজ এর চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমানম, ব্যাংক এশিয়া লিঃ এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও চেয়ারম্যান আরফান আলী ও উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম (ডি)।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন নর্দান ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইকরামুল ইসলাম, আইটি ডিরেক্টর সাদ আব্দুল্লাহ জাবির, ফাইন্যান্স ডিরেক্টর মিস লাবিবা আব্দুল্লাহ, বঙ্গবন্ধু গবেষণা কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক প্রফেসর ড. আনোয়ারুল করিম, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোসাম্মত হাবিবুন নাহার ও ব্যাংক এশিয়া লিঃ এর ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোহাম্মদ জিয়াউল হাসান মোল্লা।

নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. আবু ইউসুফ মো. আবদুল্লাহ জানান, “আমরাই প্রথম কোন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষায় এভাবে ঋণ সহায়তা দিচ্ছি। ছাত্রত্ব শেষ করে কর্মজীবনে গিয়ে তারা এই ঋণ পরিশোধ করবে। যদিও উন্নত বিশ্বের প্রায় সব দেশেই শিক্ষা বিষয়ক লোনের ব্যবস্থা রয়েছে।”

এই ঋণ সুবিধার ফলে বৈশ্বিক সঙ্কট কালেও নর্দান ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা আগামীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দৃঢ়তার সঙ্গে অগ্রসর হতে পারবে বলে আশা করছে নর্দান কর্তৃপক্ষ।

নর্দান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ এর যুগ্ম পরিচালক শেখ মাহাবুব রহমান প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই