মেইন ম্যেনু

ডিমের খোসা খাওয়া প্রচুর উপকারী!

শুধু ডিম নয়, শরীরের জন্য ডিমের খোসাও দারুণ উপকারী। ডাক্তাররা বলছেন, ডিমের মধ্যে মোট ২৭ রকমের বিভিন্ন প্রকার মিনারেল ও খনিজ উপাদান রয়েছে। যা মানব দেহের হাড় ও দাঁতের জন্য বিশেষভাবে উপযোগী। আর ডিমের খোসার মধ্যে রয়েছে আয়রন, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, জিঙ্ক, ক্লোরিন, ফসফরাস ইত্যাদি। সব মিলিয়ে প্রতিদিন দেড় থেকে তিন গ্রাম ডিমের খোসা হতে পারে অসাধারণ প্রাকৃতিক খাদ্য।

নারীদের বয়স বাড়লে হাড় দুর্বল হতে শুরু করে। তাই প্রতিদিন অল্প করে ডিমের খোসা খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের মাত্রা বেড়ে যাবে। দাঁতের মাড়ি ও দাঁত ঝকঝকে রাখতেও ডিমের খোসা গুঁড়া করে লেবুর রস মিশিয়ে তা মেজে নিন। দেখবেন দাঁত সুস্থ থাকবে।

গ্যাস্ট্রিক ও আলসারে ভুগছেন? দুটি ডিমের খোসার গুঁড়া, ৩ টেবিল চামচ লেবুর রস ও আধাকাপ গরম দুধ মিশিয়ে সকালে ও রাতে পান করুন। এতে ভালো উপকার পাবেন।

রক্ত পরিষ্কার রাখতেও ডিমের খোসার প্রচুর উপকার। পাঁচটি ডিমের খোসা গুঁড়া করে, দশ কাপ পরিমাণ পানি ভালো করে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে পান করুন। বাতের ব্যথা থেকে উপশম পেতেও ডিমের খোসা দারুণ উপকার করে।

একটি ডিমের সাদা অংশ এবং এক বা দুটি ডিমের খোসা গুঁড়া করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ত্বকে ব্যবহার করুন। তারপর হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। আর দেখুন ত্বক কেমন নরম কোমল হয়ে গেছে।



মন্তব্য চালু নেই