শিরোনাম:

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সাংবাদিকের উপর হামলা

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে একটি দাখিল মাদ্রাসায় তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছে সিএনএন বাংলা ও দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার সাংবাদিক আব্দুল আলিম।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার আমবালা দাখিল মাদ্রাসায় এই ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিক আলিমকে পীরগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সাংবাদিক আলিম জানান, আমবালা দাখিল মাদ্রাসা প্রতিদিন দুপুর একটার দিকে ছুটি দিয়ে থাকেন এমন সংবাদ পেয়ে পেয়ে তথ্য সংগ্রহের জন্য তিনি সহ আরো তিন সাংবাদিকরা দুপুর একটা বিশ মিনিটে ঐ মাদ্রাসায় যান। এ সময় মাদ্রাসার সহকারী সুপার মসলিমউদ্দীন,নাইট গার্ড আবির, অফিস সহকারী জমিরুল মাদ্রাসা বন্ধ করে বাড়ি যাচ্ছিলেন। ঐ সময় তিনি সহ অন্য সাংবাদিকরা মাদ্রাসা বন্ধ থাকার ছবি তোলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নাইট গার্ড আবির, সহকারী সুপার মসলিম উদ্দিন ও অফিস সহকায়ক জামিরুল ইসলাম তার উপর আতংকিত ভাবে হামলা করেন।

হামলাকারীরা তার গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা চালান এবং তার মোবাইল ফোন ও ক্যামেরা কেড়ে নেয়। পরে মোবাইলের মাধ্যমে তারা তাদের লোকজনকে মাদ্রাসায় ডেকে নিয়ে বিশৃংখল পরিবেশের সৃষ্টি করেন। খবর পেয়ে অন্য সাংবাদিকরা আলিমকে উদ্ধার করে পীরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন। তিনি বর্তমানে হাসপাতালের ২ নং কেবিনে চিকিৎসাধীন আছেন।

এ বিষয়ে মতামত জানতে মাদ্রাসার সুপার ওয়ারেসুর রহমানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে, তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি। পীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি জয়নাল আবেদিন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক নসরতে খোদা রানা সহ স্থানীয় সাংবাদিকরা ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন।

প্রেসক্লাবের সভাপতি জয়নাল আবেদিন বাবুল বলেন, তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে সাংবাদিকের উপর এ ধরণের হামলার ঘটনা-স্বাধীন সাংবাদিকতার প্রতি নগ্ন হস্তক্ষেপ। যা কখনই কাম্য নয়। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই।

ঘটনার বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ঐ মাদ্রাসার সভাপতি আখতারুল ইসলাম জানান, তিনি শুনেছেন, সাংবাদিকরা নাকি টাকা চেয়েছিলেন। এজন্য এ রকম অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। তার পরেও তিনি বিষয়টি দেখছেন বলে জানান।