বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে নেতৃত্ব দিবে: সজীব আহমেদ ওয়াজেদ

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব আহমেদ ওয়াজেদ বলেছেন, বাংলাদেশ চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে অংশগ্রহণই করবে না, আগামী দিনে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবটিকস ও মাইক্রোপ্রসেসর এর মতো নতুন নতুন উদ্ভাবনের মাধ্যমে প্রযুক্তি বিশ্বে নেতৃত্ব দিবে।

এই লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার জ্ঞানসহ বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে গবেষণায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া এবং নীতি প্রণয়ন করা হবে বলেও জানান তিনি।

‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস ২০২০’ উপলক্ষ্যে গতকাল আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের এগিয়ে যাওয়ার ১২ বছর’ শীর্ষক ওয়েবিনারে ডিজিটাল প্লাটফর্মে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সজীব আহমেদ ওয়াজেদ ফ্রিল্যান্সিংয়ে বাংলাদেশ পৃথিবীর দ্বিতীয় উল্লেখ করে বলেন, প্রযুক্তি ব্যবহার করে তরুণদেরকে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। তরুণরা গ্রামে বসেই অনলাইনে ফ্রিল্যান্সিং করে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করছে।

আইসিটি উপদেষ্টা বলেন, গত ১২ বছরে আইসিটি খাতে কার্যকরী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করার কারণেই করোনা মহামারি আমাদের প্রশাসনিক সহ বিভিন্ন কাজ বাধাগ্রস্ত করতে পারেনি। আমরা ই-নথি চালু করে কার্যক্রম সচল রেখেছি। সামাজিক সেবা সহ কোন সেবা বন্ধ হয়নি।
ডিজিটাল হওয়ার কারণে দেশের মানুষ ঘরে বসেই পণ্য ক্রয়-বিক্রয় করতে পেরেছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো বলেন, গুজব একটি বৈশ্বিক সমস্যা। সাধারণ মানুষকে গুজব বিষয়ে জানাতে ৩৩৩ নম্বর চালু করা হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব নিয়াজ মোহাম্মাদ জিয়াউল আলম, কিশোর সাইবার নোবেল জয়ী সাদাত রহমান এবং সিমপ্রিন্ট টেকনলোজির সিইও ড. টোবি ডিজিটাল প্লাটফর্মে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন।

ওয়েবিনারে সঞ্চালনা করেন এটুআই এর পলিসি এডভাইজার আনীর চৌধুরি।

তথ্যবিবরণী-পিআইডি



মন্তব্য চালু নেই