মেইন ম্যেনু

সড়ক ভেঙে ঢাকা-খাগড়াছড়ি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

খাগড়াছড়ি-ঢাকা সড়কের হেঁয়াকো এলাকায় রাস্তা ভেঙে ঢাকা-খাগড়াছড়ি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।মঙ্গলবার দুপুরের দিকে সড়ক ভেঙে এই অচলাবস্থার সৃষ্টি হয় বলে শান্তি পরিবহনের রামগড় অফিসের লাইনম্যান অর্জুন জানান।

আকস্মিকভাবে রাস্তা দেবে গভীর খাদের সৃষ্টি হওয়ার ফলে খাগড়াছড়ির সাথে ঢাকা, ফেনী কুমিল্লা সহ সারা দেশের সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

ফলে খাগড়াছড়িগামী এবং ফেনী ও ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাসসহ অসংখ্য যানবাহন ওই এলাকায় সড়কের দুই প্রান্তে আটকা পড়েছে।

চট্টগাম সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ জুলফিকার জানান, সড়কের মেরামত কাজ দ্রতগতিতে চলছে। সন্ধ্যা নাগাদ সড়ক যোগাযোগ ফের স্থাপন করা সম্ভব হবে।

স্থানীয় এলাকাবাসীরা জানান, মঙ্গলবার দুপুরের দিকে রামগড় ফেনী সড়কের হেঁয়াকো এলাকায় রাস্তার মাঝখানে এপার ওপার ভেঙ্গে প্রায় ১২ ফুট প্রস্থ আকারে নালা সৃষ্টি হয়। এতে করে ভাঙা রাস্তা দিয়ে পানি প্রবাহ শুরু হয়। জানা যায়, ওই স্থানে রাস্তার মাটির নীচে পানি চলাচলের জন্য স্থাপন করা ইট সিমেন্টের বড় পাইপ ভারি যানবাহনের চাপে ভেঙ্গে যায়। গত দুদিনের টানা বৃষ্টিপাতে রাস্তার এক পাশের ডোবার একটি পাড়ও পানির তোড়ে ধসে যাওয়ায় রাস্তার খাদের সাথে ডোবাটির সংযোগ সৃষ্টি হলে জন সাধারণ ও যাত্রীদের দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়।

আটকে পড়া অনেক যানবাহন আবার যাত্রী বদল করে বিপরীত দিকে রওনা দিচ্ছে। স্থানীয় এলাকাবাসী, আটকা পড়া গাড়ীর চালক ও যাত্রীরা অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার দুপুরে রাস্তাটি ভেঙ্গে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়লেও সড়ক ও জনপথ বিভাগ পরের দিন মেরামতের কাজ শুরু করে।

খাগড়াছড়ি শান্তি পরিবহনের রামগড় অফিসের লাইনম্যান অর্জুন দে জানান, মঙ্গলবার রাত থেকে ভেঙ্গে যাওয়া রাস্তার দুই অংশে অসংখ্য পণ্যবাহি ট্রাক, পিকআপ, যাত্রীবাহি বাস ইত্যাদি যানবাহন আটকা পড়ে আছে।

তিনি আরো জানান, এলাকার লোকজন রাস্তা ভেঙ্গে তৈরী হওয়া নালার উপর বাঁশ ও কাঠ দিয়ে পুল নির্মাণ করে মানুষ ও অটো রিকশা, মোটর সাইকেল পারাপারের ব্যবস্থা করেছে।



মন্তব্য চালু নেই