মেইন ম্যেনু

হাতে পুরো কোরআন লিখলেন বরিশালের এই তরুণ

কোনো ছাপাখানায় নয় পবিত্র কোরআন হাতে লিখেছেন বাংলাদেশের এক তরুণ।

হুমায়ুন কবির সুমন নামের এই প্রতিভাবান তরুণের বাড়ি বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার বারড়িয়া গ্রামে।

অথচ তিনি কোনো মাদ্রাসায় পড়েননি। হাতে কোরআন লিখতে তার সময় লেগেছে ৩ বছর।

প্রবল ইচ্ছা শক্তি আর অধ্যবসায়ের ফলে হুমায়ুন হাতে কোরআন লিখেছেন বলে জানান তার পরিবারের সদস্যরা।

হুমায়ুনের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৯ সালে এসএসসি পাস করার পর হুমায়ুন কোরআন লেখার উদ্দেশ্যে আরবি লেখা শেখেন।

২০০৭ সালে তিনি কোরআন হাতে লেখা শুরু করেন। ২০১০ সালে তার পুরো ত্রিশ পারা কোরআন লেখা সম্পন্ন হয়।

তিনি শুধু কোরআনের আয়াতই লেখেননি পাশাপাশি পৃষ্ঠা বিন্যাস ও সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে ক্যালিওগ্রাফিও ব্যবহার করেছেন তার লিখিত পাণ্ডুলিপিতে।

হুমায়ুনের এই হাতে লিখিত কোরআন বরিশালের বিভিন্ন মহলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে।

ভবিষ্যতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় হাতে লেখা কুরআনে পাণ্ডুলিপি তৈরি করতে ইচ্ছা প্রকাশ করেন হুমায়ুন।

বাকেরগঞ্জের বারড়িয়া গ্রামের রজব আলী শিকদারের ছেলে হুমায়ুন কবির সুমন বর্তমানে ঢাকার গাউছিয়া মার্কেটের একটি শোরুমের সহকারী ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।



মন্তব্য চালু নেই