শিরোনাম:

হুগলিতে ধাক্কা খেয়ে ডুবল বাংলাদেশি জাহাজ

পশ্চিমবঙ্গের হুগলি নদীতে দুটি জাহাজের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটেছে। ক্ষতিগ্রস্ত দুটি জাহাজের একটি ডুবে গেছে। ডুবে যাওয়া জাহাজটি বাংলাদেশি। এর নাম এমভি রাফসান হাবিব-৩। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। তবে ডুবে যাওয়া জাহাজের ৯ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪পরগনা জেলার কুলপি থানা এলাকার হুগলি নদীর পয়লা নম্বর এলাকায় স্থানীয় সময় ভোর ৫টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, এমভি রাফসান হাবিব-৩ নামে জাহাজটি ছাই বোঝাই করে বাংলাদেশে আসছিল। সেই সময় উল্টোদিক থেকে আসা আরেকটি জাহাজের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয় এমভি রাফসান হাবিবের। ধীরে ধীরে হুগলি নদীতে ডুবে যেতে থাকে জাহাজটি। এ সময় এমভি রাফসানে থাকা কর্মীদেরকে উদ্ধার করে অন্য জাহাজের কর্মীরা।

পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধারকাজে সহযোগিতা করেন পুলিশ, সিভিক ভলেন্টিয়ার এবং স্থানীয় মানুষেরা। এ দিকে ঘটনার কথা জানাজানি হলে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। দুঘর্টনাস্থলের নদী তীরে ভিড় জমায় স্থানীয়রা।

জালাল শেখ নামে এক বাসিন্দা বলেন, সকালে অতিরিক্ত কুয়াশার কারণে জাহাজের নাবিকেরা একে অপরকে দেখতে পারেননি। তাতেই দুর্ঘটনা ঘটে।

শুধু কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে মানতে নারাজ ডুবে যাওয়া জাহাজের কর্মী পুলক কুমার মণ্ডল।

তিনি বলেন, আমরা ঠিক পথেই যাচ্ছিলাম। ঠিক তখন বামদিক থেকে এসে অপর জাহাজটি আমাদের ধাক্কা মারে। এ সময় একই জায়গায় নদীতে আরও ৫টি জাহাজ ছিল। জাহাজটি সঠিক দিক-নির্দেশনা না মেনে চালানোতেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। অন্য আরও জাহাজের ক্ষতি হতে পারত।

দুর্ঘটনার খবর বাংলাদেশের এজেন্সিতে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।